প্রকাশ্যে যৌন মিলন ,অত:পর

বৈচিত্র ডেস্ক :  আদিমতার টানে স্থির মানুষও অপ্রকৃতিস্থ হয়ে উঠে। বিপরীত লিঙ্গের সঙ্গ কামনায় ব্যক্তি তখন হুশ হারায়। যেন এক চুমুকে গিলে খেতে চায় গোটা সাগরের জল। যেন মাঝ দরিয়ায়ও ডুবে মরার কোনও ভয় থাকে না। আর মরুতৃষ্ণার সেই ক্ষণে সঙ্গীটি যদি হাতের কাছে ধরা দেয়। আর তখন প্রেমের তীব্রতায় কাণ্ডজ্ঞান হারিয়ে ফেলেন অনেকেই। অতিক্রম করে ফেলেনে সভ্যতার সমস্ত সীমা।

সম্প্রতি এমন ঘটনাই ঘটেছে ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যে সড়ক বিভাজকে বসে। আর সেই সেখানকার পথচারীর কল্যাণে আপত্তিকর সেই দৃশ্যের ভিডিও ইন্টারনেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে প্রকাশ্যেই যৌনতায় মেতে উঠেছে এক প্রেমিক যুগলকে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, রাজ্য সরকারের সদর দফতর থেকে সামান্য দূরত্বে মেরিন ড্রাইভের নরিম্যান পয়েন্টে সড়ক বিভাজকের ওপর যৌন মিলন করছিল ওই যুগল। এ ঘটনায় শোরগোল পড়ে যায়। উৎসুক অনেকে ঘটনার ছবি বা ভিডিও ধারণ করতে থাকেন। মুহূর্তেই সেগুলো ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে। কিন্তু সেদিকে ভ্রুক্ষেপ ছিল না দুজনের।

একপর্যায়ে কেউ একজন পুলিশকে ফোন করেন। পরে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে স্থানীয় মানুষের ভিড়ে সটকে পড়ে ওই যুগল। কিন্তু তাতেও রক্ষা হয়নি। ভিড়ের মধ্য থেকেই তরুণীকে ধরে ফেলে পুলিশ। কিন্তু তার পুরুষ সঙ্গীর কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি।

পুলিশের ভাষ্য, ওই নারীর পুরুষ সঙ্গী সম্ভবত বিদেশি। এলাকার সব ক্লোজড সার্কিট টেলিভিশন (সিসিটিভি) ক্যামেরার ফুটেজ খতিয়ে দেখে তার সন্ধান করা হচ্ছে। আটকের পর রাস্তায় যৌন মিলনের বিষয়টি পুরোপুরি অস্বীকার করেছেন ওই তরুণী। জেরার মুখে তিনি পুলিশকে জানান, তারা পরস্পরকে শুধু চুম্বন করছিলেন।

পুলিশের দাবি, ওই তরুণীর বক্তব্যে অসঙ্গতি রয়েছে। প্রথমে তিনি নিজেকে গোয়ার বাসিন্দা বললেও পরে আবার অন্য ঠিকানার কথা জানান। পুলিশের ধারণা, ওই নারীর মানসিক স্থিতি নেই। তাকে চেম্বুরের নারী সুরক্ষা কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *