শামুকের ঘুম

বৈচিত্র ডেস্ক :  শামুক মলাস্কা পর্বের প্রাণী। পৃথিবীতে প্রায় ৪৩ হাজার প্রজাতির শামুক আছে। এরা মরুভূমি, পাহাড়, জলাভূমি, বনভূমি, সাগর, মহাসাগরসহ প্রায় সব জায়গাতেই থাকতে পারে।

প্রজাতি ও আবাসস্থলের ভিন্নতায় এদের খাদ্যাভ্যাস গড়ে ওঠে। এরা দিনের বেশিরভাগ সময় খাদ্যের সন্ধানে কাটায়। খাবার পেলে খায়। ক্লান্ত হলে বিশ্রাম নেয়। কখনও আবার ঘুমিয়ে পড়ে। এরা প্রতিদিন নিয়ম করে ঘুমায় না। প্রয়োজনবোধে ২ থেকে ৩ ঘণ্টা কিংবা ১ থেকে ২ দিন কিংবা ৩ দিন একটানা ঘুমায়।

আবার না ঘুমিয়েও অনেকদিন পার করে দেয়। দীর্ঘ সময় না ঘুমালেও ঘুমানোর প্রয়োজন অনুভব করে না। শামুকের কোনো কোনো প্রজাতি একটানা ৩ বছর পর্যন্ত ঘুমিয়ে পার করে দিতে পারে। মূলত খাদ্যাভাব, খরা কিংবা শীতের প্রকোপ থেকে আত্মরক্ষার জন্য শামুক লম্বা সময় ঘুমায়। এটা এক ধরনের অভিযোজন কৌশল।

এ সময় শামুকের দেহে নানা পরিবর্তন হয়। এরা দেহ থেকে এক ধরনের মিউকাস নিঃসরণ করে এবং তা দেহের চারপাশে আবরণ সৃষ্টি করে। এ আবরণ শামুককে বাইরের প্রতিকূল পরিবেশ থেকে রক্ষা করে। পরিবেশ স্বাভাবিক হলে এরা আবার স্বাভাবিক জীবন শুরু করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *