রাজপথেই খালেদা জিয়ার মুক্তি

বৈচিত্র ডেস্ক :  বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, সরকার চায় না খালেদা জিয়া জামিনে মুক্তি পাক। সেই জন্য আইনি প্রক্রিয়ায় তার মুক্তি সম্ভবপর নয়। তার মুক্তির একটিই পথ- সেটি হল রাজপথ।

বুধবার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন চত্বরে আয়োজিত প্রতীকী অনশন কর্মসূচিতে দলের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের উদ্দেশে তিনি এসব কথা বলেন।

মওদুদ বলেন, মূল মামলায় জামিন হওয়ার পরও সরকার ষড়যন্ত্র করে খালেদা জিয়াকে কারাগারে বন্দি করে রেখেছে। খালেদা জিয়াকে ছাড়া, বিএনপিকে ছাড়া অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন হবে না।

তাই স্পষ্ট করে বলতে চাই- সরকার যতই ষড়যন্ত্র করুক না কেন, ২০১৪ সালের মতো একতরফা নির্বাচন দেশে আর হতে দেয়া হবে না।

সভাপতির বক্তব্যে ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, বারবার জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করা যায় না। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির মতো নির্বাচন এ দেশে আর হবে না। আজ সারা দেশ ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। আগামী নির্বাচন হতে হবে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে। শেখ হাসিনার অধীনে কোনো নির্বাচন হবে না।

ড. মোশাররফ বলেন, আগামী নির্বাচনে খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে আমরা অংশগ্রহণ করব এবং এ দেশের জনগণ খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিত্বশীল সরকার গঠন করবে। আপনারা যারা প্রশাসনের লোক আওয়ামী লীগের হয়ে কাজ করছেন, আপনাদের কিন্তু প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী হিসেবে ভবিষ্যতেও কাজ করতে হবে।

দুপুর ১২টা ৫ মিনিটে বিএনপি নেতাদের পানি পান করিয়ে প্রতীকী অনশন ভাঙান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমাজউদ্দীন আহমদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *