চোখের সামনে হারিয়ে গেলো দ্বীপ

বৈচিত্র ডেস্ক : চোখের সামনে গায়েব হয়ে গোটা একটি দ্বীপ। এই ঘটনায় স্তম্ভিত পেশাদার ভূগোলবিদ থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ। জাপানের এসানবেহানাকিতাকোজিমা নামের একটি দ্বীপ পুরোপুরি হারিয়ে গেছে।

জানা গেছে, হোক্কাইডোর সারুফাৎসু গ্রামের থেকে ৫০০মিটার দূরত্বে অবস্থিত ছিল এই দ্বীপটি। জাপানের সমুদ্রে অবস্থিত ১৫৮টি জনবসতিহীন দ্বীপেরই একটি ছিল এসানবেহানাকিতাকোজিমা। ২০১৪ সালে তাকে এই নাম দেয় জাপান সরকার।

আন্তর্জাতিক আইন অনুসারে, সেই ভূখণ্ডকেই ‘দ্বীপ’ বলা যাবে, যেটি জোয়ারের সময়েও পানির উপরিতলে জেগে থাকে। সেদিক থেকে দেখলে, এসানবেহানাকিতাকোজিমা এই শর্ত অবশ্যই পূরণ করেছিল। তাকে দ্বীপ’র মর্যাদাই দেওয়া হয়েছিল সরকারি ভাবে।

কিন্তু এখন দ্বীপটি পানির তলে তলিয়ে যাওয়ায় চিন্তায় পড়ে গেছেন জাপানি সমুদ্র ও ভূ-বিশেষজ্ঞরা। ১৯৮৭ সালে জরিপ অনুযায়ী, এসানবেহানাকিতাকোজিমা সাগরতলের ১.৪ মিটার উপরে বিরাজ করত। এখ তার উধাও হয়ে যাওয়ায় ধরে নিতে হবে, সমুদ্রতল উপরে উঠে এসেছে।

জাপানের উপকূলরক্ষী বাহিনীর মুখপাত্র তোমু ফুজি জানিয়েছেন, ঝড় ও তুষারপাতের কারণেও এসানবেহানাকিতাকোজিমা হারিয়ে যেতে পারে। আপাতত জাপানের উপকূলরক্ষী বাহিনী সংশ্লিষ্ট এলাকায় অনুসন্ধান চালাচ্ছে। সেই জায়গাটি জাহাজ চলাচলের জন্য নিরাপদ কি না, তা খতিয়ে দেখছে উপকূলরক্ষী বাহিনী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *