জুতা থেকে সাবধান

বৈচিত্র ডেস্ক :  চেহারা ও পোশাকের সঙ্গে খাপ খাওয়ানো একটা মনের মতো জুতা! অফিস হোক বা বেড়াতে যাওয়া- একজনের ব্যক্তিত্বে বিশেষ ছাপ ফেলে তার জুতা। কিন্তু পছন্দের জুতা বাছতে বসলেই কি হাই হিল জুতার দিকে নজর যায়? তাহলে সতর্ক হওয়ার সময় এসেছে।

চাহিদার কথা মাথায় রেখে আজকাল নারী-পুরুষ নির্বিশেষে সবার জুতার নিচেই একটু-আধটু হিল রাখছে জুতা প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানগুলো। মেয়েদের ক্ষেত্রে সেই হিলের উচ্চতা ও সরু গঠন দিনকে দিন বাড়ছে। জুতার দোকানে ছেলেদের সু-এর র‌্যাকেও একটু উঁচু হিল চোখে পড়ছে সহজেই।

আর এখানেই প্রমাদ গুনছেন হাড় ও স্নায়ুবিশেষজ্ঞরা। ‘আজকাল অল্পবয়সী ছেলেমেয়েদের বেশির ভাগেরই হাঁটুর অসুখ কেন জানেন? এর জন্য অন্যতম দায়ী এই হিল জুতা। ছেলেদের ফর্মাল বুটের তলাতেও আজকাল একটু উঁচু প্ল্যাটফর্ম গুঁজে দিচ্ছে জুতার কোম্পানিগুলো। ফলে কম বয়সে আর্থ্রাইটিসকে একপ্রকার ডেকে আনা হচ্ছে’- বললেন অস্থি রোগ বিশেষজ্ঞ অমিতাভ নারায়ণ মুখোপাধ্যায়।

সহমত প্রকাশ করছেন স্নায়ুরোগ বিশেষজ্ঞ ত্রিদিব চৌধুরীও। তার কথাতেও ফুটে উঠছে আশঙ্কার সুর- ‘হিল পরা বন্ধ না করলে পায়ের নানা অসুখ তো বটেই, এমনকি একালে প্যারালাইসিস হওয়ার সম্ভাবনাও থেকে যায়।

হাঁটুর সমস্যা: ছেলেদের জুতার নিচে হিল কিছুটা ফ্ল্যাট হয়, তাই ছেলেরা এই সমস্যায় ভোগেন কম। কিন্তু মেয়েদের হিল লম্বা ও সরু হওয়ায় তাদের জুতা কোনো রকম আচমকা পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে পারে না। লম্বা হিল থাকায় পা সব সময় তেরছাভাবে উঁচু হয়ে থাকে। এতে রক্তসঞ্চালনে যেমন সমস্যা হয়, তেমনই দীর্ঘক্ষণ পা ওইভাবে থাকায় পায়ের ওপর পড়া যাবতীয় চাপ সহ্য করতে হয় হাঁটুকেই। শরীরের ভারসাম্যও রাখতে হয় তাকে। ফলে হাঁটু সহজেই বিগড়ে যায়। ডেকে আনে অস্টিওআর্থ্রাইটিস।

মেরুদণ্ডের নিচের দিকে ব্যথা: এমন জুতায় শরীরের ভার পুরোটাই হাঁটুকে বহন করতে হয় বলে মেরুদণ্ডকেও ভারসাম্য রাখতে হয় এই অতিরিক্ত চাপের সঙ্গে। এ সমস্যায় পড়েন উঁচু প্ল্যাটফর্ম হিল পরা পুরুষরাও।

পায়ে ব্যথা: এমন জুতায় পায়ের তালু কখনোই মাটির সঙ্গে সমান্তরাল থাকে না। আঙ্গুলের দিক কিছুটা তেরছা হয়ে মাটিতে পড়ে। ফলে আঙ্গুলে ব্যথা থেকে পাতা ফুলে যাওয়া, নানা সমস্যা দেখা যায়। প্ল্যাটফর্ম হিলে এ সমস্যা অত বেশি না থাকলেও উঁচু সরু হিলে তো আছেই। তবে প্ল্যাটফর্ম হিলও খুব উঁচু হলে পায়ের পাতার ভারসাম্য রক্ষা করা কঠিন হয়ে পড়ে।

মস্তিষ্কে প্রভাব: পায়ের পাতার অবস্থান মাটির সঙ্গে সমান্তরালে না থাকায় রক্ত সঞ্চালনে বাধা আসে। আর এর প্রভাব পড়ে মস্তিষ্কের হাইপোথ্যালামাসেও। চিকিৎসকদের মতে, এ কারণে ভয়ানক মাথা যন্ত্রণা হওয়াও বিচিত্র নয়।

স্নায়ুর সমস্যা: এমন জুতার জেরে পায়ের স্নায়ুগুলোতে রক্তসঞ্চালনে ব্যাঘাত ঘটে। হাঁটুকে অতিরিক্ত পরিশ্রম করতে হয় বলে স্নায়ুর ওপর চাপও পড়ে। তাই এমন অভ্যাস খুব বেশি থাকলে তা ডেকে আনতে পারে স্নায়ুর নানা সমস্যা। এমনকি, পা অবশ করে প্যারালাইসিসও ডেকে আনতে পারে। আনন্দবাজার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *