চাষ করুন লাল মুলা

বৈচিত্র ডেস্ক : শীতে সবজির বাজারে সবচেয়ে সহজলভ্য হচ্ছে মুলা।  অত্যন্ত জনপ্রিয় এই সবজির বহু গুণ রয়েছে। ওজন কমানো থেকে শুরু করে ত্বক ও কিডনির সমস্যাতেও দারুণ কাজে আসে লাল মুলা।চলুন তাহলে দেখে নেওয়া যাক শীতকালীন সবজি লাল মুলার কিছু অজানা গুণ…

নির্বিষকরণ
যকৃত ও পাকস্থলীর জন্য দারুণ উপকারী মুলা।  শরীরে শক্তিশালী নির্বিষকারী হিসেবে কাজ করে এ সবজি।  রক্তশুদ্ধিতে অসাধারণ ভূমিকা রাখে মুলা।  এ ছাড়া জন্ডিসের রোগীদের রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা বাড়াতে মুলা খাওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা।

পাইলস নিরাময়
মুলা খেলে হজমক্ষমতা বাড়ে।  যাদের পাইলস রয়েছে, তাদের খুবই কাজে লাগে এই সবজি। এতে থাকা কার্বোহাইড্রেট ও ফাইবার পাইলস নিরাময়ে সাহায্য করে।

মূত্রনালির স্বাস্থ্য
মুলা খেলে শরীরে মূত্রের পরিমাণ বাড়ে।  মূত্র ত্যাগ করার সময় যে কোনো রকম প্রদাহ থেকে আরাম দেয় মুলার রস।

ওজন কমানো
মুলায় প্রচুর পরিমাণে পানি ও ফাইবার উপস্থিত।  তাই যারা ওজন কমাতে চান, তারা একবার ট্রাই করে দেখতে পারেন।

স্ট্রেস কমানো
মুলায় প্রয়োজনীয় অ্যান্থোসায়ানিন নামক উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন প্রাকৃতিক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপস্থিত, যা  মানুষের খাদ্যের অন্যতম মৌলিক উপাদান।

ক্যানসার প্রতিরোধ
মুলায় উপস্থিত ইসোথিওসায়ানাইটস শরীরে ক্যানসারের কোষ তৈরিতে বাধা দেয়।

ত্বকের পরিচর্যা
মুলায় উপস্থিত পানি ত্বকে মসৃণতা বজায় রাখতে সাহায্য করে।

কিডনির সমস্যা
মুলা অ্যান্টিসেপটিক হিসেবেও কাজ করে। কিডনির যে কোনও সমস্যা রোধ করতে সাহায্য করে এ সবজি।

ডিহাইড্রেশন
শীতকালীন এই সবজিতে প্রচুর পরিমাণে পানি থাকায় শরীরে পানির প্রয়োজনীয়তা অনেকটাই পূরণ করতে পারে মুলা।

রোগ প্রতিরোধ
এই সবজিতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকে। আর ভিটামিন সি ঠাণ্ডা ও ক্যানসার প্রতিরোধ করতে সক্ষম।

শ্বাস-প্রশ্বাস
মুলা খেলে শ্বাস প্রশ্বাস পরিষ্কার হয়, মেটাবলিজম বাড়াতে সাহায্য করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *