এক টিকেটে তিন পথে ভ্রমণ

বৈচিত্র ডেস্ক : এক টিকেটেই ভ্রমণ করা যাবে তিন পথে। অর্থাৎ রেল, সড়ক ও নৌ পথে সমন্বিত যোগাযোগ ব্যবস্থায় এই সুযোগ পাওয়া যাবে। এরইমধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই সম্পর্কিত নির্দেশনা দিয়েছেন। মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে তিনি এই নির্দেশনা দেন বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন শেখ হাসিনা।

পরে সংবাদ সম্মেলনে এসে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী রেল, সড়ক ও নৌ পরিবহনের জন্য একটি সমন্বিত যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে তোলার নির্দেশ দিয়েছেন, যাতে এক টিকেটে সকল পরিবহনে যাতায়াত করা যায়। উন্নত দেশে এমন ব্যবস্থা চালু আছে’।

একনেক বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী যোগাযোগ ব্যবস্থা, বিশেষ রেলের উন্নয়নেও কয়েকটি নির্দেশনা দেন বলে জানান মান্নান।

তিনি বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী অদূর ভবিষ্যতে দেশের রেল যোগাযোগকে আধুনিকায়ন করার জন্য অবশিষ্ট মিটারগেজ লাইনগুলাকেও ব্রডগেজে রূপান্তরের নির্দেশনা দিয়েছেন’।

‘প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, রেল খাতের দক্ষতা বাড়াতে বিএমআরই (ব্যালেন্সিং, মডার্নাইজেশন, রিহ্যাবিরেটশন, এক্সপানশন) করতে হবে। এর মাধ্যমে কর্মীদের দক্ষতা বাড়িয়ে রেলের প্রয়োজনীয় ছোট ছোট পার্টসগুলো নিজেদেরই তৈরি করতে হবে। এখন সব কিছুই আমদানি করতে হয়। এজন্য প্রয়োজনীয় জনবল ও অবকাঠামো তৈরীর নির্দেশ দিয়েছেন’।

প্রধানমন্ত্রী জমি ব্যবহারে সর্বোচ্চ সাশ্রয়ী হওয়ার নির্দেশনাও দিয়েছেন জানিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বৈঠকে বলেছেন, তিন ফসলী জমি, চর ইত্যাদি যেন নষ্ট না হয়। স্থাপনা নির্মাণ করতে কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিতে হবে’।

‘এজন্য একটি জাতীয় নীতিমালা তৈরি করতে ভূমি মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে’।

পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, একনেক মোট নয়টি উন্নয়ন প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছে; যাতে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ১৬ হাজার ৪৩৩ কোটি টাকা।

মোট ব্যয়ের মধ্যে সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে ১৩ হাজার ৬২০ কোটি টাকা, সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলোর নিজস্ব তহবিল থেকে ২৮৬ কোটি টাকা এবং প্রকল্প সহায়তা হিসেবে ২ হাজার ৫২৭ কোটি টাকা যোগান দেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *