গরুর হাজিরা আদালতে

বৈচিত্র ডেস্ক:  গরু একটি গৃহপালিত পোশু। তার চারটি পা, একটি লেজ। এমন ধরনের নেহাতই নির্বিষ বাক্য প্রায় প্রত্যেকেই ছোটবেলায় গরু রচনায় লিখে এসেছে। তবে, যত সময় গেছে, তত আমরা পিছিয়েছি আর ততই এগিয়ে এসেছে এই গৃহপালিত জীবটি।

নিজেদের ‘চারটি পা, একটি লেজ’-এর সুখী গৃহকোণ ছেড়ে! একবিংশ শতকের আঠারো, উনিশ বছর পার করে এখন প্রায়শই শোনা যায়, গরু সম্বন্ধীয় প্রায় চোখ উল্টে দেয়া বহু বক্তব্য! যেমন- ‘গরু আমাদের মা’, ‘গরুকে ভারতের জাতীয় পশু বলে ঘোষণা করা হোক’ এসব! ঘটনা হলো, আসলে আরও যা যা শোনা যায়, তার কাছে এই দুটি উদাহরণও নেহাতই যাকে বলে ‘টিপিক্যাল ভালোমানুষ’।

গরু নিয়ে শুক্রবার রাজস্থানের যোধপুরের এক স্থানীয় আদালতে এমনই একটি ঘটনা ঘটল, যা সাধারণ রূপকথার গল্পেই পাওয়া যায়! গরুর মালিক কে, তা নির্ধারণ করার জন্য স্বয়ং গরুকেই হাজির করানো হলো রাজস্থানের আদালতে!

দাড়ি কামানো আর স্নানে অনীহা স্বামীর, ‘প্রতিবাদ’-এ ডিভোর্সের মামলা স্ত্রী’র

সংবাদ সংস্থা এএনআইকে আইনজীবী রমেশ কুমার বিষ্ণোই বলেন, কে গরুর মালিক? তা নিয়ে নিজেদের মধ্যে ঝামেলা করছিল পুলিশ সদস্য ওমপ্রকাশ এবং শিক্ষক শ্যাম সিংহ। তারপর দুজনেই একটি বিষয়ে সহমত হওয়ার পর গরুটিকে গোয়ালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু, ঝামেলাটি সেখানেই শেষ হল না”।

গত বছরই মান্দোরা থানায় এই মামলাটি দায়ের করা হয়। পুলিশ এর সমাধান না করতে পারায় যোধপুরের মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তোলা হয় মামলাটি।

মামলার শুনানি ফের হবে আগামী ১৫ এপ্রিল। কে গরুর মালিক? তা নিয়ে সিদ্ধান্ত জানাবেন বিচারপতি। সেই রায় শোনার জন্য আদালতে ফের গরুটি উপস্থিত থাকবে কি না, তা অবশ্য জানা যায়নি!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *