মাধুরীর সঙ্গে কাজ করতে গিয়ে নার্ভাস হয়ে যেতেন সঞ্জয়!

বিনোদন ডেস্ক:  নব্বইয়ের দশকে সঞ্জয় দত্ত এবং মাধুরী দীক্ষিতের প্রেমের গুঞ্জনে সরগরম ছিল বলিউড পাড়া। অনস্ক্রিনে তখন একের পর এক কাজ করে চলেছেন এই জুটি। অফস্ক্রিনেও তাদের সম্পর্ক নিয়ে বহু গুঞ্জন ছিল। এরপর কেটে গেছে দীর্ঘ ২২ বছর। অবশেষে ফের মুখোমুখি হয়েছেন এই জুটি, ছবি ‘কলঙ্ক’।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সঞ্জয় দত্ত বলেছেন, মাধুরীর সঙ্গে কাজ করাটা দারুণ অভিজ্ঞতা। আমি একটু নার্ভাসই থাকতাম। মাধুরীই বরং কাজটা অনেক সহজ করে দিয়েছিল। আমরা শুটিং ব্রেকে নিজেদের সন্তানদের নিয়েও কথা বলতাম। আমি তো শাহরান আর ইকরার (সঞ্জয়ের ছেলে-মেয়ে) সঙ্গে মাধুরীর আলাপ করাতে ওদের সেটেও নিয়ে গিয়েছিলাম।

‘কলঙ্ক’ ছবির ভাবনা মূলত ছিল করন জোহরের বাবা প্রয়াত যশ জোহরের। সঞ্জয় জানান, ১৯৯৩ সালে ‘গুমরাহ’ ছবির শুটিংয়ের সময়ই এই গল্পের কথা তাকে বলেছিলেন যশ।

তিনি বলেন, ‘গুমরাহের সময় যশ আঙ্কেল আমাকে গল্পটা বলেছিলেন। ধর্মা প্রোডাকশন তো পরিবারের মতো। ফলে করন যখন বিষয়টি আমাকে বলল, তখন না বলার কোনো প্রশ্নই ছিল না। আরও একটা ব্যাপার- এ ছবিতে আমার চরিত্রের নাম বলরাজ। আমার বাবা সুনীল দত্তের আসল নাম ছিল এটাই। পার্টিশানের সময় বাবাও পাকিস্তান থেকে এসেছিলেন। ফলে মানসিকভাবে এ ছবির সঙ্গে প্রথম থেকেই যুক্ত ছিলাম।’

‘কলঙ্ক’ মুক্তি পাবে আগামী ১৭ এপ্রিল। সঞ্জয়, মাধুরী ছাড়াও আলিয়া ভাট, বরুণ ধাওয়ান, সোনাক্ষী সিনহা, আদিত্য রায় কাপুরের মতো শিল্পীর অভিনয়ে সমৃদ্ধ এই ছবি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *