মাকে হত্যার পর ২ বছরের শিশুকেও খুন

বৈচিত্র ডেস্ক:  নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলায় বাড়িতে ঢুকে গৃহবধূকে খুন করার পর তাঁর প্রতিবন্ধী সন্তানকে বাড়ির পাশের ডোবায় ফেলে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে উপজেলার বাঁশিলা উত্তরপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন বাঁশিলা উত্তরপাড়া গ্রামের প্রবাসী গার্মেন্টস কর্মী মাহামুল ইসলাম মুন্নার স্ত্রী হালিমা আক্তার শারমিন ও তাঁর ছেলে আবদুল্লাহ (২)।

পুলিশ জানায়, গতকাল রাতে বাঁশিলা উত্তরপাড়া গ্রামের প্রবাসী গার্মেন্টস কর্মী মুন্নার বাড়িতে হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। এ সময় তারা বাড়ির অন্য ঘরের দরজা শেকল দিয়ে আটকে দেয়, যেন কেউ বের হতে না পারে। পরে ঘরে ঢুকে মুন্নার স্ত্রী শারমিনকে শ্বাসরোধে হত্যার পর প্রতিবন্ধী ছেলে আবদুল্লাহকে বাড়ির পাশের ডোবায় ফেলে দেয়।

পরে আজ সকালে প্রতিবেশীদের কাছে খবর পেয়ে স্বজনরা শারমিন ও তাঁর ছেলে আবদুল্লাহর লাশ দেখে পুলিশে খবর দেন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের লাশ উদ্ধার করে। এ সময় শারমিনের ঘরটি তছনছ অবস্থায় পাওয়া যায়।

কারা কী কারণে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে, তা ময়নাতদন্তসহ অনুসন্ধানের মাধ্যমে জানা যাবে বলে জানিয়েছেন নলডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুর রহমান।

কয়েক দিন ধরে এ এলাকায় অন্তত সাতটি বাড়িতে চুরির ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *