পৃথিবীর বাইরেও প্রাণের সন্ধান মিলতে পারে!

বৈচিত্র ডেস্ক:  সৌরজগতের বাইরেও কি প্রাণ রয়েছে? আর তা নিয়ে প্রতিনিয়ত গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছেন মহাকাশ বিজ্ঞানীরা। যদিও এখনও পর্যন্ত এই বিষয়ে কোনও প্রমাণ কিংবা সূত্র হাতে পাননি মহাকাশ বিজ্ঞানীরা। কিন্তু দীর্ঘদিন এই বিষয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালালেও হাল ছাড়েননি তারা। নিত্য-নতুন তথ্য এবং প্রযুক্তির সাহায্যে মহাকাশে প্রাণের সন্ধান চালিয়ে যাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। তবে লড়াইয়ে কিছুটা আশার আলো দেখতে শুরু করেছেন তারা।

দীর্ঘদিন ধরে ব্রিটেনের লিঙ্কন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা সৌরজগতে প্রাণের সন্ধান চালিয়ে যাচ্ছেন। তাদেরই এক গবেষণায় উঠে এসেছে চাঞ্চল্যকর কিছু তথ্য। বিজ্ঞানীদের বিস্ফোরক দাবি, সৌরজগতে থাকা গ্রহগুলোর উপগ্রহগুলোতে প্রাণের সন্ধান পাওয়া যেতে পারে।

শুধু তাই নয়, গ্রহগুলোকে কেন্দ্র করে আবর্তিত হতে থাকা উপগ্রহগুলোতে ভিনগ্রহী প্রাণের উপযোগী পানি থাকতে পারে বলেও মনে করছেন তারা। দীর্ঘদিন ধরে এই বিষয়ে গবেষণা চালিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

লিঙ্কন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা বলছেন, এখনও পর্যন্ত প্রায় চার হাজারেরও বেশি গ্রহের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। যেগুলো সৌরজগতে প্রতি মুহূর্তে প্রদক্ষিণ করছে। আর এই কয়েক হাজার গ্রহের মধ্যে খুব ছোট কোনও অংশে প্রাণের খোঁজ মিলতে পারে বলে আশা করছেন এই মহাকাশ বিজ্ঞানীরা।

তাদের দাবি, যদি আরও ভালো করে এগুলো পরীক্ষা করা যায় তাহলে কিছু গ্রহ, বিশেষত বৃহৎ গ্যাসের ভাণ্ডার গ্রহগুলোর উপগ্রহে তরল অবস্থায় পারি খোঁজ পাওয়া যেতে পারে।

তাদের এই দাবি মহাকাশ বিজ্ঞানে নতুন দিগন্ত খুলে দিয়েছে। নতুন করে আশার আলো দেখতে শুরু করেছেন মহাকাশ বিজ্ঞানীরা। গবেষকদের একাংশের মতে, লিঙ্কন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীদের দাবি যদিও সত্যি হয় তাহলে মহাকাশ বিজ্ঞানে সবচেয়ে বড় বিপ্লব ঘটতে চলেছে। কারণ যে আবিষ্কার নিয়ে দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে গবেষণা চলছে তার একটা নতুন রাস্তা খুলে যাবে বলেও মনে করছেন বিজ্ঞানীদের একাংশ। যদিও অন্য একটি অংশের মতে এই বিষয়ে এখনই কিছু বলা সম্ভব নয়। কারণ একাধিকবার সৌরজগতে প্রাণের সন্ধান নিয়ে নানান দাবি করা হয়েছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত প্রাণের কোনও খোঁজ পাওয়া যায়নি। ফলে গবেষণা আরও চালিয়ে যেতে হবে বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীদের অপর অংশ।

যদিও লিঙ্কন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ফিল জে সাটন জানিয়েছেন, সংশ্লিষ্ট গ্রহের অভিকর্ষজ টানের কারণে এই উপগ্রহগুলোর অভ্যন্তরে একটা উষ্ণতার সৃষ্টি হয়। যে কারণে সেই সমস্ত গ্রহ, উপগ্রহগুলোতে প্রাণের ভান্ডার তৈরি হয়। যা আমরা বর্তমানে পৃথিবীর মতো গ্রহগুলোর মধ্যে খুঁজে বের করার চেষ্টা করছি।

তিনি আরও বলেন, আমি বিশ্বাস করি, যদি আমরা ওই গ্রহগুলোকে খুঁজে বের করতে পারি, তাহলে তাদের উপগ্রহগুলোতে পৃথিবীর বাইরে প্রাণের সন্ধান পাওয়ার বেশি সম্ভাবনা রয়েছে।

রয়্যাল অ্যাস্টোনমিক্যাল সোসাইটির জার্নাল ‘মান্থলি নোটিস’-এ এই গবেষণাপত্রটি প্রকাশিত হয়েছে। গবেষণাপত্রটিতে সৌরজগতের বাইরের জে১৪০৭বি গ্রহের একাধিক উপগ্রহের সন্ধান পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *