ইরানের তেল আমদানি অব্যাহত রাখতে চায় জাপান

বৈচিত্র ডেস্ক:  জাপান ইরানের তেল আমদানি অব্যাহত রাখতে আগ্রহী বলে জানিয়েছেন ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি। পাশাপাশি দেশটির দক্ষিণাঞ্চলের চবাহার বন্দরেও বিনিয়োগে আগ্রহী জাপান।

বুধবার ইরান সফররত জাপানের প্রধানমন্ত্রী সিনজো আবের সঙ্গে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে হাসান রুহানি এসব কথা জানান।

যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের মধ্যে উত্তেজনা কমাতে বিশেষ ভূমিকা রাখতে ইরানে সফরে রয়েছেন সিনজো আবে। ইরানে পৌঁছার পর বুধবার রাতেই দেশটির প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির সঙ্গে দুই দফা বৈঠক করেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী। এর পর যৌথ সংবাদ সম্মেলনে অংশ নেন তারা।

সংবাদ সম্মেলনে রুহানি বলেন, দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক এবং মধ্যপ্রাচ্যে নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ ও উত্তেজনা হ্রাসের বিষয়ে আমরা আলোচনা করেছি। উভয় দেশই মধ্যপ্রাচ্যের নিরাপত্তা এবং স্থিতিশীলতাকে অত্যন্ত গুরুত্ব দেয়।

ইরান কোনো যুদ্ধে জড়াবে না বলে দেশটির প্রেসিডেন্ট বলেন, আমি জাপানি প্রধানমন্ত্রীকে বলেছি- আমরা মধ্যপ্রাচ্যে কোনো যুদ্ধের সূচনাকারী হব না। এমনকি যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গেও না। কিন্তু আমাদের বিরুদ্ধে যদি কোনো যুদ্ধ শুরু করা হয়, তা হলে আমরা অত্যন্ত কঠোর জবাব দেব।

ইরানের ওপর মার্কিন অবরোধের কারণেই উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে দাবি করে রুহানি বলেন, জাপানি প্রধানমন্ত্রীকে বলেছি- উত্তেজনাকর পরিস্থিতি দেখা যাচ্ছে তার উৎস হলো ইরানের বিরুদ্ধে আমেরিকার অর্থনৈতিক যুদ্ধ। এই অর্থনৈতিক যুদ্ধ বন্ধ হলে মধ্যপ্রাচ্যসহ গোটা বিশ্বে বড় ধরনের ইতিবাচক পরিবর্তন দেখা যাবে।

এ সময় জাপানের প্রধানমন্ত্রী সিনজো আবে বলেন, ইরানকে ঘিরে যে উত্তেজনা তৈরি হয়েছে, তা নিরসনে জাপান ভূমিকা রাখতে চায়। এ সময় তিনি মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি ও স্থিতিশীলতাকে গোটা বিশ্বের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে উল্লেখ করেন।

১৯৭৯ সালের ইসলামী বিপ্লবের পর এই প্রথম কোনো জাপানি প্রধানমন্ত্রী ইরান সফরে গেলেন।

বন্ধুত্বের নিদর্শন হিসেবে ইরানের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের চলমান উত্তেজনা কমাতে জাপান সহায়তা করতে পারে বলে জানিয়েছেন ইরানের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা। ইরান আশা করে, যুক্তরাষ্ট্র হয় অন্যায় তেল নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে নেবে, নতুবা ইরানি তেল ক্রয়ে দেশগুলোকে ছাড় দেবে কিংবা তা বাতিল করে দেবে।

গত মাসে জাপানে চার দিনের সফরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানকে মোকাবেলায় আবের সহায়তাকে স্বাগত জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *