পিরিয়ডের ব্যথা দূর করবে যেসব খাবার

বৈচিত্র ডেস্ক:  পিরিয়ড নারীদের জন্য একটি স্বাভাবিক প্রক্রিয়া। প্রতি মাসে পিরিয়ড নারীদের মা হওয়ার জন্য প্রস্তুত করে। তবে অন্য সময়ের চেয়ে পিরিয়ডের সময়টা নারীদের জন্য একবারে ভিন্ন।

এ সময় পেটব্যথা, কোমর ব্যথা, হাত জ্বালা-পোড়া করা, বমি-বমিভাব ও মাথাব্যথাসহ বিভিন্ন সমস্যা হতে পারে।

বেশির ভাগ নারীদের পিরিয়ডের সময় পেট ব্যথা হয়।পেট ব্যথা অনেক সময় অসহনীয় পর্যায়ে চলে যেতে পারে।কিছু খাবার রয়েছে যা আপনার পিরিয়ডের ব্যথা কমাবে।

পিরিয়ডের সময় ভিটামিন এবং মিনারেল-জাতীয় খাবার খাওয়া জরুরি। প্রতিদিনের খাবার তালিকায় ভিটামিনসমৃদ্ধ খাবার রাখুন।

পিরিয়ড কী

প্রতি চন্দ্রমাস পরপর হরমোনের প্রভাবে পরিণত মেয়েদের জরায়ু চক্রাকারে যে পরিবর্তনের মধ্যে দিয়ে যায় এবং রক্ত ও জরায়ু নিঃসৃত অংশ যোনিপথে বের হয়ে আসে তাকেই ঋতুচক্র বলে।

মাসিক চলাকালীন পেটব্যথা, পিঠব্যথা, বমি-বমি ভাব হতে পারে। আর যাদের এই মাসিক ঋতুচক্র প্রতি মাসে হয় না অথবা দুই মাস আবার কখনও ৪ মাস পরপর হয়, তখন তাকে অনিয়মিত পিরিয়ড বলে। অনিয়মিত পিরিয়ড নারীদের বিভিন্ন সমস্যা হতে পারে।

আসুন জেনে নেই পিরিয়ডের ব্যথা কমাবে যেসব খাবার-

১. পিরিয়ডের সময় ভিটামিন ডি ও বি সমৃদ্ধ খাবার খান। এতে হাড় ও পেশী ব্যথায় স্বস্তি পাবেন।

২. পিরিয়ডের ব্যথায় আনারস বা আনারসের জুস খেতে পারেন। আনারস ব্যথা দূর করবে।

৩. পিরিয়ডে পেটে ব্যথা স্বস্তি দেবে আদা। এছাড়া জ্বর বা মাথাব্যথা ও কোমরে ব্যথা হলে আদা চা খান।

৪. পিরিয়ডের ব্যথা দূর করতে যোগব্যয়াম করতে পারেন। এতে পেশী শক্তিশালী হয় ও হরমোন জনিত সমস্যাও কমে যায়।

৫. পিরিয়ডের সময় বেশি তেল-মশলা জাতীয় খাবার ও ফাস্টফুড খাওয়া যাবে না।

৬. পিরিয়ডের সময় অবসাদ, ক্লান্তি ও অসুস্থ লাগে। মেজাজ চাঙ্গা রাখতে আইসক্রিম, চকোলেট খেতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *