মাথা কাটার গুজব ছড়ানো সেই যুবক আটক

 বৈচিত্র ডেস্ক:  মাথা কাটা ও ছেলে ধরার গুজব ছড়ানোয় এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। তার নাম আবদুল শহিদ হাওলাদার (২৪)।

বুধবার তাকে ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার চরমাদ্রাজ থেকে আটক করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে গুজব ছড়ানোর কাজে ব্যবহৃত একটি স্মার্টফোন জব্দ করা হয়েছে।

আটক আবদুল শহিদ হাওলাদার চরফ্যাশন উপজেলার চরমাদ্রাজ ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রামের বাসিন্দা।

চরফ্যাশন থানা পুলিশের ওসি শামসুল আরেফিন জানান, দীর্ঘদিন ধরে আবদুল শহিদ হাওলাদার বিভিন্ন এলাকার মানুষকে ফোন করে এবং ফেসবুকে পোস্ট ম্যাসেঞ্জারের মাধ্যমে শিশুদের মাথা কেটে নেয়া হচ্ছে, ছেলে ধরারা শিশুদের ধরে নিয়ে যাচ্ছে, এমন গুজব ছড়িয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করছিলেন।

তিনি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে গুজব ছড়ানোর কাজে ব্যবহৃত স্মার্টফোনসহ তাকে আটক করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি দোষ স্বীকার করেছেন এবং এ কাজে তার সঙ্গে আরও দুজন রয়েছে বলে জানান। আপাতত তাদের নাম প্রকাশ করা যাবে না।

আটক আবদুল শহিদ হাওলাদার বলেন, তাকে এ গুজব ছড়ানোর জন্য কোনো একটি চক্র উৎসাহিত করেছে।

৮-১০ দিন ধরে জেলার বিভিন্ন মানুষকে ফোন করে, ফেসবুকে এবং ম্যাসেঞ্জারের গ্রাফিক্স ডিজাইনের মাধ্যমে মাথা কাটা ছবি, ভয়ভীতি মূলক লেখা পোস্ট এবং ম্যাসেঞ্জারে পাঠিয়ে মানুষের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি করা হচ্ছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *