ফারিয়ার প্রেম, বিয়ে, সিনেমা…

 বিনোদন ডেস্ক:  সিনেমায় ব্যস্ততা

গত ২০ জুন ভারতের পশ্চিমবঙ্গে মুক্তি পেয়েছে বিরসা দাশগুপ্তের পরিচালনায় বিবাহ অভিযান ছবিটি। অঙ্কুশের সঙ্গে অভিনীত ছবিটি সেখানে খানিক সাড়াও ফেলেছে। এই ছবির ব্যস্ততা শেষ হতে–না হতেই ফারিয়া যোগ দিয়েছেন দীপংকর দীপনের ঢাকা ২০৪০ ছবির শুটিংয়ে। আর এর সঙ্গে শাকিব খানের বিপরীতে মুক্তি প্রতীক্ষিত শাহেনশাহ ছবি নিয়ে উত্তেজনা তো আছেই। সব মিলিয়ে নুসরাত ফারিয়ার ২০১৯ সালটা সিনেমাময়। ফারিয়া বলেন, ‘গত বছরের চেয়ে এ বছরটি আমার জন্য দারুণ সুখের। সব কাজই আমার ক্যারিয়ারে নতুন মাত্রা যোগ করতে যাচ্ছে।’

তাহলে এ বছর কাজের ব্যস্ততা কি একটু বেশিই? ফারিয়া বলেন, ‘গত ছয় মাস আমি মাত্র ৮–১০ দিন ছুটি কাটিয়েছি। এটাই আমার জন্য বড় পাওয়া। টানা কাজ করছি। ৭ জুলাই ঢাকা ২০৪০ ছবির প্রথম ধাপের শুটিং শেষ হয়েছে। এরপর ১২ থেকে ১৭ জুলাই টানা বিজ্ঞাপনের কাজ করব। শেষ করেই আবার ছবির গানের শুটিং। সামনে একটি রেডিও অনুষ্ঠান করব। সব মিলিয়ে এ বছরে একটু বেশি ব্যস্ততা।’

ফারিয়ার ভালো সময়, খারাপ সময় 

২০১৫ সাল থেকে সিনেমায় অভিনয় শুরু। এ পর্যন্ত ডজনখানেক ছবিতে অভিনয় করেছেন। ২০১৯ সালকে ক্যারিয়ারের সবচেয়ে সেরা সময় হিসেবে বললেন ফারিয়া। কেন? ‘এ বছরের পুরো সময়টাই ভালো সিনেমা, ভালো ভালো পণ্যের বিজ্ঞাপনে কাজ করেছি। যখন জাজ মাল্টিমিডিয়ার হয়ে সিনেমায় কাজ শুরু করলাম, তখন সবাই বলাবলি করেছিলেন জাজের সঙ্গে আছে ফারিয়া, কাজের অভাব হবে না। কিন্তু জাজের চুক্তি শেষ হওয়ার পর ভালো ভালো কাজ আরও বেশি পাচ্ছি।’

ভালোর পরেই আসে মন্দের প্রসঙ্গ। ফারিয়ার বেলায় দুঃসময় এসেছে সুসময়ের আগে। অর্থাৎ, ২০১৮ সালটা ফারিয়ার জন্য ছিল একটু কঠিন। গত বছর ফারিয়া অভিনীত ইন্সপেক্টর নটি কে নামে শুধু একটা ছবিই মুক্তি পেয়েছিল। এর বাইরে ‘পটাকা’ নামে একটি গানের ভিডিও করেছিলেন তিনি। ব্যস, কাজ বলতে শুধু এটুকুই। তাহলে কি হাতে কাজ ছিল না ফারিয়ার, নাকি অন্য কোনো বিষয় ছিল? ফারিয়া বলেন, ‘কাজ যে পাইনি তা নয়, অনেক লোভনীয় কাজের প্রস্তাব ছিল। করিনি। কার সঙ্গে কাজ করব, কী কাজ করব, এসব নিয়ে বছরটিতে হিসাব–নিকাশ করেছি। আর সেটা করেছি বলেই এ বছর ভালো কাজের সুযোগ এসেছে। কঠিন সময়ে ধৈর্যের ফল যে ভালো হয়, তা আমি বুঝতে পারছি।’

আসেনি ‘পটাকা ২’ 

গত বছরের শুরুর দিকে মুক্তি পায় ফারিয়ার নিজের কণ্ঠে গাওয়া গান ‘পটাকা’ ও এর ভিডিও। মুক্তির প্রথম দিন ফারিয়া নিজেই ঘোষণা দিয়েছিলেন বছরের শেষে গিয়ে ‘পটাকা’ গানটির সিক্যুয়াল ‘পটাকা ২’ বাজারে আসবে। কিন্তু প্রায় দেড় বছর হয়ে গেল আসেনি ‘পটাকা ২’। এ ব্যাপারে ফারিয়া বলেন, ‘সময় বের করতে পারিনি। পরপর তিনটি ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম। এরপর শুটিংয়ে ঢুকে যাই।’ তবে বছরের শেষের দিকে আবার গানে ফেরার ইচ্ছা আছে ফারিয়ার। তিনি বলেন, ‘গানটি নিয়ে ভেতরে–ভেতরে প্রস্তুতি চলছে। পরের গানটি আরও মনোযোগ দিয়ে করতে চাই।’

অভিনেত্রী ফারিয়া, উপস্থাপিকা ফারিয়া

ছোটবেলা থেকে বিতর্কচর্চার সঙ্গে যুক্ত। মাত্র ১৭ বছর বয়স থেকে উপস্থাপনা শুরু করেছেন। একটা-দুটো নয়, গুনে গুনে ৩৫০টি অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করা হয়ে গেছে নুসরাত ফারিয়ার। মধ্যে ২০১৫ সালে চলচ্চিত্রে নাম লেখানোর পর উপস্থাপনা থেকে দূরে ছিলেন। তবে এই বছর আবার পুরোনো পরিচয়ে ফিরে গেছেন এই অভিনেত্রী। ‘মেরিল–প্রথম আলো পুরস্কার ২০১৮’ অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করে দারুণ প্রশংসিত হয়েছেন নুসরাত ফারিয়া।

অভিনেত্রী ফারিয়া ও উপস্থাপিকা ফারিয়া—দুটো পরিচয়ের মধ্যে ফারিয়ার প্রিয় কোনটি? তিনি বলেন, ‘দেখুন, বর্তমান ফারিয়া একজন অভিনেত্রী। অভিনয়টাকে সে উপভোগ করে। আর উপস্থাপনা আমার শিকড়। এটা বাদ দিয়ে ফারিয়ার অস্তিত্ব নেই। দুটো পরিচয়ই আমার কাছে জরুরি এবং হৃদয়ের কাছের। মোটকথা, দিন শেষে আমি একজন এন্টারটেইনার।’

প্রেম, বিয়ে ও সংসার

তারকাদের প্রেম-বিয়ে নিয়ে গুঞ্জন শোনা যায় হরহামেশাই। কোনো কোনো তারকার বেলায় সেই গুঞ্জন সত্যও হয়। বেশ কিছুদিন ধরে চলচ্চিত্রপাড়ায় নুসরাত ফারিয়ার প্রেমের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। তাই আমরা এ বিষয়ে জানতে চাইলে প্রেমের কথা অকপটে স্বীকার করে নেন তিনি। জানালেন, বিনোদন জগতের বাইরে একজনের সঙ্গে প্রায় ছয় বছর ধরে প্রেম করছেন। বলেন, ‘প্রেম করেই বিয়ে করতে চাই। এক বছর থেকে দুই বছরের মধ্যে বিয়ে সেরে ফেলব। পারিবারিকভাবে বড় আকারে আয়োজনটা করতে চাই।’

বিয়ের পর সংসার নিয়েও কথা বললেন এই নায়িকা—‘আমি একান্নবর্তী পরিবারে বড় হয়েছি। আর সংসার তো শুধু দুটো মানুষের না, পরিবারের সবার। বিয়ের পর পরিবারের সবাইকে নিয়ে একসঙ্গে থাকার ইচ্ছা আমার।’

ফারিয়ার পড়াশোনা 

অভিনয়, উপস্থাপনা ও মডেলিংয়ে ব্যস্ত নুসরাত ফারিয়া। পিছিয়ে নেই পড়াশোনাতেও। ইউনিভার্সিটি অব লন্ডনের অধীনে ব্রিটিশ স্কুল অব ল-তে আইন বিষয়ে পড়াশোনা করছেন তিনি। ফারিয়া বলেন, ‘দ্বিতীয় বর্ষে পড়ছি। এখানে শেষ করে “বার অ্যাট ল” করতে চাই।’ অর্থাৎ অভিনেত্রী ফারিয়া হতে পারেন আগামীদিনের ব্যারিস্টার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *