রাজধানীর উত্তরায় তীব্র যানজটে যাত্রীরা নাকাল

বৈচিত্র ডেস্ক:  রাজধানীর উত্তরায় তীব্র যানজটে নাকাল উত্তরা-গাজীপুরের মানুষ। একসময় পুরোপুরি স্থবির হয়ে পড়া উত্তরা-এয়ারপোর্ট সড়কের যানজট গিয়ে ঠেকেছে খিলক্ষেত থেকে গাজীপুর পর্যন্ত।

সকাল পৌনে ৮টায় হাউস বিল্ডিং থেকে রওনা দিয়ে বেলা সাড়ে ১১টাও এয়ারপোর্ট পৌঁছাতে পারেননি হাজার হাজার কর্মজীবী মানুষ।

টানা ভারী বর্ষণে ড্রেনেজ সিস্টেম অকেজো হয়ে রাস্তায় পানি জমে এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে বলে জানান উত্তরা ট্রাফিক পুলিশের সিনিয়র সহকারী কমিশনার জুলফিকার।

ট্রাফিক উত্তরের ডিসি প্রবীর কুমার রায়ও একই কথা বলেন। তিনি বলেন, এয়ারপোর্টের সামনের দিকের সড়ক ও গাজীপুরের দিকে সড়কে বৃষ্টির পানি জমে থাকায় সকাল থেকে গাড়ি চলাচল প্রায় বন্ধ ছিল। দুপুরের দিকে এয়ারপোর্টের দিকে চলাচল কিছুটা স্বাভাবিক হলেও গাজীপুরের দিকে স্বাভাবিক হয়নি।

ফলে উত্তরা এলাকায় গাড়ি চলাচল স্থবির হয়ে আছে। সেক্টরের সংযোগ সড়কগুলো ফাঁকা রাখা হয়েছে যেন একপাশ থেকে আরেক পাশে গাড়িগুলো যেতে পারে।

এয়ারপোর্টের দিকে অল্প করে গাড়ি ছাড়া হচ্ছে। রাস্তা থেকে বৃষ্টির পানি সরে গেলে গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক হয়ে আসবে বলেও জানান তিনি।

উত্তরা ট্রাফিক পুলিশের সিনিয়র সহকারী কমিশনার জুলফিকার বলেন, দীর্ঘদিন এ এলাকার ড্রেনগুলো ঠিকমতো পরিষ্কার করা হয়নি। ফলে টানা বৃষ্টিতে সড়কের কোথাও হাঁটুপানি জমায় এ অবস্থা হয়েছে। এখন আমরা এক লেন করে গাড়ি ছাড়ছি।

অফিসগামী অনেক যাত্রী বলেন, সেই সাড়ে ৭টায় বাসা থেকে বেরিয়ে ১২টা নাগাদ হাউস বিল্ডিং থেকে মহাখালী পৌঁছেছি। দীর্ঘসময় গাড়ি উত্তরাতেই স্থবির হয়েছিল।

যানজট থেকে বৃষ্টির মধ্যেই অনেকে গাড়ি থেকে নেমে হেঁটে কর্মক্ষেত্রে রওনা দেন। বর্ষা মৌসুমের শুরুতেই জলাবদ্ধতায় ভোগান্তিতে চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেন তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *