কোয়েলে স্বাবলম্বী স্বপন

বৈচিত্র ডেস্ক:  কিশোরগঞ্জে কোয়েল পাখির খামার দিয়ে স্বাবলম্বী হয়েছেন স্বপন মিয়া। তার খামারের নাম দিয়েছেন শাহজালাল কোয়েল ফার্ম অ্যান্ড হ্যাচারি। প্রতিদিনই বিভিন্ন এলাকা থেকে ক্রেতারা তার খামারে আসেন এবং বাচ্চা ক্রয় করে নিয়ে যান। বেশির ভাগ ক্রেতা আসেন নিজেদের খামারে বাচ্চা লালন-পালন করে বড়ো করে বিক্রি করার জন্য। আর পাইকাররাও আসেন খামার থেকে ক্রয় করে বিভিন্ন হাট-বাজারে পাখি অথবা ডিম খুচরা বিক্রির জন্য। তার খামারের নাম চারদিকে ছড়িয়ে পড়ার কারণে প্রতিদিনই ক্রেতার ভিড় বাড়ছে।

সদর উপজেলার কাটাখালি গ্রামে সাড়ে ছয় শতাংশ জমির ওপর নির্মিত স্বপন মিয়ার কোয়েলের খামার। স্বপনের খামারে গিয়ে দেখা গেছে, চারটি শেড নির্মাণ করেছেন। চারটি শেডের একটিতে ইনকিউবেটরে বৈদ্যুতিক বাল্বের তাপে কয়েক হাজার ডিমে তা দেওয়া হচ্ছে। একটি শেডে নতুন জন্ম নেওয়া কয়েক হাজার বাচ্চার পরিচর্যা করছেন। একটিতে দেড় হাজার মাতৃকোয়েল ডিম দিচ্ছে। অপরটিতে কয়েক হাজার পরিণত বয়সের কোয়েল রয়েছে। স্বপনের এখন খরচ বাদ দিয়ে মাসে আয় হচ্ছে ৩০ থেকে ৪০ হাজার টাকা। বর্তমানে খামারে ২৫ হাজার কোয়েল রয়েছে।

নরসিংদীর শিবপুর উপজেলার পুটিয়া গ্রাম থেকে দুই ভাই আল আমিন ও শাকিল এসেছে বাচ্চা কেনার জন্য। তারা ১২ হাজার টাকায় দুই হাজার বাচ্চা নিয়ে গেছে। একটি কোয়েল দেড়মাস থেকে দুই মাস বয়স হলেই নিয়মিত দেড় বছর পর্যন্ত ডিম দেয়। কোয়েলের ডিম বেশ সুস্বাদু। তাতে কোলস্টেরল নেই। ১০০ ডিম ১৬০ থেকে ১৮০ টাকায় বিক্রি হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *