‘দুই সিটির মশা মারার ৫০ কোটি টাকা কারা লুট করেছে?’

পীর হাবিবুর রহমান:

আমি চিৎকার করে কাঁদিতে চাহিয়া করিতে পারিনি চিৎকার’ ডেঙ্গুর ভয়াবহতা, মানুষের মৃত্যু দেখে আমার ঘুম আসছে না। নবারুন ভট্টচার্য্যের মতো বলতে পারি ‘এই মৃত্যু উপত্যকা আমার দেশ না’! এতো ক্ষোভ, এতো দ্রোহ, এতো প্রতিবাদ। কিন্তু বঙ্গবন্ধুর জীবন উৎসর্গ করা সংগ্রাম নেতৃত্বে, লাখো শহীদের রক্তে অর্জিত মাতৃভূমি ছেড়ে কোথাও যাবো না।

আজ সকল মানুষের অশ্রুর রঙ এক। সকল মানুষের আর্তনাদ অভিন্ন। গোটা দেশের মানুষের প্রতিবাদের ভাষা এক। এখানে কোন রাজনীতি নেই, বিভেদ নেই। আছে ডেঙ্গুর ভয়াবহতার সামনে আতঙ্ক উদ্বেগ উৎকণ্ঠা। আছে সবার বেঁচে থাকার, নিরাপদ থাকার গভীর আকুতি।

ঢাকার দুই মেয়র এডিস মশার প্রজননরোধে সময় মতোন কার্যকর পদক্ষেপ কেনো নিতে পারেননি? আইসিডিডিআরবি মার্চ মাসে এডিসের প্রজননস্থল দেখিয়ে পদক্ষেপ নিতে বললেও কেনো নেয়া হয়নি? হাইকোর্ট তিরস্কার করলেও না। ভেজাল ওষুধ মারার নাটক কেনো হলো!

দুই সিটির মশা মারার ৫০ কোটি টাকা কারা লুট করেছে? আইসিসিডিডিআরবি বলেছে, এ ওষুধে মশা মরবে না। তবু কেনো ওষুধ আনা হয়নি? কেনো মানুষ যখন জীবন মৃত্যুর মুখে, ভয়ে তখন মেয়র একে গুজব বলেন? কেনো মিনিস্টার রোহিঙ্গাদের মতো এডিস মসার প্রজনন বলে উপহাস করে দেশের বাইরে চলে গেলেন?

সমালোচনার মুখে ফিরে মিনিস্টার সাংবাদিকদের কেনো ধমক দিলেন? অনেকেই ডেঙ্গু রোগ নিয়ে বাড়ি যাবেন ঈদে, যেখানে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা নেই! যেখানে ঢাকায় উন্নত চিকিৎসায় মানুষ মরছে সেখানে জেলা উপজেলায় কি হবে?

দায়িত্বপালনে ব্যর্থরা রোজ নাটক করে, মশা মারার ওষুধ কবে আসবে কেউ বলে না। আমি আজ একজন নাগরিক হিসেবে ডেঙ্গু প্রতিরোধে ব্যর্থদের বিরুদ্বে বিচার চাই, আমি আজ উদ্বিগ্ন দেশের মানুষের সাথে সমবেতভাবে দোষীদের শাস্তি চাই। এদের শাস্তি দিতেই হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *