৩য় শ্রেণি পর্যন্ত পরীক্ষা বাতিলের সকল প্রক্রিয়া চূড়ান্ত

বৈচিত্র ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী ইতোমধ্যেই ১ম থেকে ৩য় শ্রেণি পর্যন্ত পরীক্ষা বাতিলের সব প্রক্রিয়া চূড়ান্ত হয়েছে। আগামী বছর ১০০টি স্কুলে পরীক্ষামূলকভাবে এ পদ্ধতি কার্যকর করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী। এ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে শিক্ষাবিদরা বলছেন, সরকারের এমন সিদ্ধান্তে ভবিষ্যৎ প্রজন্ম আরো সমৃদ্ধ হবে । এমন নির্দেশনায় শিশু শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি অভিভাবকরাও নিজেদের চাপমুক্ত মনে করছেন।

বর্তমান সমাজে সন্তানের একাডেমিক ভালো ফলাফলের প্রতিযোগিতায় নেমেছেন প্রায় সকল অভিভাবকই। শৈশবে এমন পড়ার চাপে নূব্জ প্রায় প্রতিটি শিক্ষার্থী। তবে সম্প্রতি ১ম শ্রেণি থেকে পরীক্ষা বাতিলের ঘোষণায় খুশি অভিভাবকরা।

সরকারের এমন সিদ্ধান্তকে ইতিবাচকভাবে দেখছেন শিক্ষাবিদরা। এ পদ্ধতি বাস্তবায়নে শিক্ষকদের প্রতিশ্রুতি ও আন্তরিক সদিচ্ছা প্রয়োজন বলেও মনে করছেন তারা।

ড. এম অহিদুজ্জামান বলেন, আমরা যারা শিক্ষক, আমাদেরকে আরো আন্তরিক হতে হবে।

আগামী বছর থেকেই এ পদ্ধতি প্রথমে ১০০ স্কুলে চালু করা হবে এ জন্য শিক্ষকদেরকে এ বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে বলে জানান, প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন বলেন, আমরা এটাকে একটা পাইলট প্রজেক্টের মতো করে দেখছি।

পরীক্ষা না থাকলেও শ্রেণিকক্ষে শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করা হবে আর সে মূল্যায়ন করবেন শ্রেণী শিক্ষকরাই।

স্কুলে একজন শিক্ষার্থী তার দিনের অর্ধেক সময় কাটায়। তাই ৩য় শ্রেণী পর্যন্ত পরীক্ষা বাতিল সরকারের এমন সিদ্ধান্ত একজন শিক্ষার্থীর শৈশবে তার মেধা ও মনন বিকাশে এবং বেড়ে উঠতে সহায়ক হবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *