তাজমহল যাচ্ছেন, জেনে নিন ৭ তথ্য

বৈচিত্র ডেস্ক : তাজমহল ভারতের আগ্রায় অবস্থিত একটি রাজকীয় সমাধি। মুঘল সম্রাট শাহজাহান তার স্ত্রী আরজুমান্দ বানু বেগম (মুমতাজ মহল) নামে পরিচিত। তার স্মৃতির উদ্দেশ্যে এই অপূর্ব সৌধটি নির্মাণ করেন। সৌধটি নির্মাণ শুরু হয়েছিল ১৬৩২ সালে যা সম্পন্ন হয়েছিল ১৬৫৩ সালে।

তাজমহলকে মুঘল স্থাপত্যশৈলীর একটি আকর্ষণীয় নিদর্শন হিসেবে মনে করা হয়- যার নির্মাণশৈলীতে পারস্য, তুরস্ক, ভারতীয় এবং ইসলামী স্থাপত্যশিল্পের সম্মিলন ঘটানো হয়েছে। এটি ১৯৮৩ সালে ইউনেস্কো বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থান হিসেবে তালিকাভুক্ত করা হয়েছিল।

সমাধির ওপরের মার্বেল পাথরের গম্বুজই সবচেয়ে আকর্ষণীয় বৈশিষ্ট্য। গম্বুজের ওপরের দিক সাজানো হয়েছে একটি পদ্মফুল দিয়ে, যা তার উচ্চতাকে আরও দৃষ্টিগোচর করে।তাজমহল নির্মাণে সে সময়ে আনুমানিক ৩২ মিলিয়ন রুপি খরচ হয়েছিল বলে ধারণা করা হয়।

তাজমহল ভ্রমণে যাওয়ার আগে জেনে নিন অজানা ৭ তথ্য-

১. মুঘল সম্রাট শাহজাহানের তৃতীয় স্ত্রী ছিলেন মমতাজ মহল। বিয়ের আগে মমতাজের নাম ছিল আর্জুমান্দ বানো বেগম।

২. ১৪তম সন্তান জন্মদানের সময় ইন্তেকাল করেন মমতাজ মহল।

৩. মমতাজ মহলের প্রকৃত সমাধিতে ক্যালিগ্রাফিক শিলালিপি হিসেবে আল্লাহর ৯৯টি নাম রয়েছে।

৪. তাজমহল নির্মাণের জন্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় স্থানান্তর করতে প্রায় একহাজার হাতি ব্যবহার করা হতো।

৫. নির্মাণের উপকরণ আনা হয়েছিল ভারতের পাঞ্জাব, রাজস্থান, আফগানিস্তান, শ্রীলঙ্কা, চীন, তিব্বত ও আরব দেশ থেকে আনা হয়েছিল

৬. তাজমহলের গায়ে রয়েছে ২৮ ধরনের মূল্যবান রত্নের সমাবেশ। দিনের বিভিন্ন সময় ও পূর্ণিমা রাতে তাজমহল নানান রঙ ধারণ করে।

৭. তাজমহল কমপ্লেক্সে ঘোরাঘুরির সময় দেয়ালের পুরোটা জুড়ে কোরআনের বিভিন্ন আয়াত চোখে পড়বে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *