দুঃস্বপ্ন, নাকি বাস্তব জীবনের প্রস্তুতি

বৈচিত্র ডেস্ক : কোন এক প্রাণী আপনাকে তাড়া করছে। আপনি প্রচণ্ডে ভয়ে দৌড়চ্ছেন। এক সময় অন্ধকার এক গর্তে পড়ে গেলেন এবং ঘুমও ভেঙ্গে গেলো। এমন দুঃস্বপ্ন অনেকেই দেখেন। এই অনাকাঙ্ক্ষিত দুঃস্বপ্ন আপনাকে হয়ত রাতের ঘুমে কষ্ট দিচ্ছে, কিন্তু একই সঙ্গে আপনাতে প্রস্তুত করছে বাস্তব জীবনের প্রস্তুতি নিতে। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র ও সুইজারল্যান্ড ভিত্তিক এক গবেষক দল এমনটাই দাবি করেছেন।

এই গবেষণায় ১৮ জন ঘুমন্ত মানুষের মস্তিষ্কের কার্যাবলীর তথ্য সংগ্রহ করা হয় যন্ত্রের সাহায্যে। পরবর্তীতে তাদের কাছে জানতে চাওয়া হয়, ‘রাতে দুঃস্বপ্ন দেখেছে কিনা?’ এদের মধ্যে যারা রাতে দুঃস্বপ্ন দেখেছে তাদের মস্তিষ্কর কার্যাবলী বিশ্লেষণ করে দেখা হয় পৃথকভাবে। এ ছাড়াও আরো ৮৯ জনের স্বপ্নের বর্ণনা এক সপ্তাহ লিখিত রাখা হয় এবং তাদের ভয়াবহ কিছু ছবি দেখিয়ে মস্তিষ্কের স্ক্যান করা হয়।

সকল পরীক্ষা শেষে দেখা যায় অনুভূতি নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে দুঃস্বপ্ন দারুণভাবে সাহায্য করে। যারা দুঃস্বপ্ন দেখেছে তারা ভয়াবহ পরিস্থিতি ভালোভাবে মুকাবিলা করতে পারে। অন্যদিকে যারা আরাম করে ঘুমান, তারা ভয়াবহ পরিস্থিতি সামলাতে অধিকাংশ ক্ষেত্রে ব্যর্থ হন।

গবেষণা দলের সদস্য স্টেরপ্যানিচ বলেন, যারা ঘুমের মধ্যে ভয়াবহ স্বপ্ন দেখেন তাদের মস্তিষ্কের গভীরে থাকা ইনসুলা, আমাদের নার্ভের সঙ্গে জড়িত সিঙ্গুলেট ও অনুভূতি নিয়ন্ত্রণে সম্পৃক্ত এমিগডালার সঞ্চালনার পরিমাণ কমে যায়। অর্থাৎ তাদের ভয়াবহ পরিস্থিতি মানসিক ও স্নায়ুবিক ভাবে নিয়ন্ত্রণের ক্ষমতা বেড়ে যায়।

তিনি আরো বলেন, তাদের মস্তিষ্ক খারাপ পরিস্থিতি মুকাবিলার জন্য প্রস্তুত হয়ে থাকে। এ কারণে প্রতিক্রিয়া কম দেখায়।

তাহলে কি দুঃস্বপ্ন আমাদের জন্য ভালো, নাকি খারাপ। ডেইলিমেইল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *