শক্তিশালী রোবটিক স্যুট ‘কুরাতাস’ (ভিডিও)

বৈচিত্র ডেস্ক : সায়েন্স ফিকশন আর চলচ্চিত্রে আমরা হরহামেশাই অ্যাডভান্স টেকনোলজির নানা রকম রোবটের কীর্তিকলাপ দেখতে পাই। আশ্চর্যের ব্যাপার হলো এসব প্রযুক্তির অনেকগুলোই এখন হাতের নাগালে। সৃষ্টির আদি থেকেই মানুষ তার উদ্ভাবনী শক্তি কাজে লাগিয়ে নিজেদের কল্পনাকে বাস্তবে রূপ দিয়ে এসেছে। জেমস ক্যামেরনের সাড়া জাগানো ‘অ্যাভাটার’ সিনেমার কথা মনে আছে তো, সেখানে এক ধরণের বিশেষ রোবটিক স্যুট দেখান হয়েছিল যার মধ্যে প্রবেশ করে অসামান্য শক্তির অধিকারী হওয়া যায়। জাপানের একটি কোম্পানি সম্প্রতি সেরকমই একটি রোবটিক স্যুট নির্মাণ করেছে যেটি যুদ্ধক্ষেত্রেও ব্যবহার করা যাবে। আর একে অভিহিত করা হচ্ছে সেত্যিকারের রোবো কপ হিসেবে।

জাপানের কাছে রোবট অনেকটা পালকহীন ঈগলের মত যা জাপানের জাতীয় গৌরবের একটি বড় অংশ। কিন্তু অনেক দিন ধরেই জাপানের এই রোবট আলোচনা অনেকটা কমিকস ও এনিমেশনের মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল। জাপানের রোবট কোম্পানি সুদবসি হেভি ইন্ডাস্ট্রির তৈরি ওই রোবটকে কর্মক্ষম মেকানিক স্যুট হিসাবে ব্যবহার করা যাবে। কুরাতাস নামক রোবটটি যে কেউ অ্যামাজন স্টোর থেকে ১ মিলিয়ন ডলারের বিনিময় কিনতে পারবেন।

কুরাতাস অনেকটা অ্যাভাটার মুভিতে দেখানো রোবটিক স্যুটের মতো। সম্প্রতি এক ভিডিও চিত্রে দেখানো হয়েছে এটি কীভাবে চালাতে হয়। আগ্রহী ক্রেতারা এই ভিডিও দেখার মাধ্যমে জানতে পারবেন কীভাবে ৫ টন ওজনের ১৩ ফুট লম্বা এই রোবটের ভিতরে বসে একে চালানো যাবে ও একে চার চাকার ট্রান্সফর্মারে রূপান্তর করা যাবে।

এর জন্য মোবাইল উপযোগী অ্যাপও রয়েছে যার মাধ্যমে এর বাহুগুলো নিয়ন্ত্রণ করা যায়। ভোক্তাদের জন্য নির্মিত রোবটগুলি ঘণ্টায় ৫ মাইল যেতে পারে যার আসল ক্ষমতা ১০ মাইল/ঘণ্টা।

বাড়তি অর্থ খরচ করে আপনি এই রোবটকে যুদ্ধ উপযোগী করে তুলতে পারবেন। একে অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত করে যুদ্ধের ময়দানে শত্রুপক্ষকে ঘায়েল করা সম্ভব। যদিও সবাই চায় প্রযুক্তিকে ভাল কাজে ব্যবহার করা হোক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *