নওগাঁ বিসিক শিল্পনগরীতে বেকারদের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে

বৈচিত্র ডেস্ক: নওগাঁ বিসিক শিল্প নগরীতে ছোট বড় বিভিন্ন শিল্প উদ্যোগ গ্রহণ করে উদ্যোক্তারা একদিকে যেমন অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হয়েছেন অন্যদিকে অনেক শিক্ষিত অর্ধশিক্ষিত বেকার জনগোষ্ঠীর কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। এ ছাড়াও জাতীয় অর্থনীতিতে এর একটি সুদুরপ্রসারী সুফল বয়ে আনতে সক্ষম হয়েছে।
নওগাঁ বিসিকের শিল্প নগরী কর্মকর্তা মোঃ আনোয়ারুল আজিম জানিয়েছেন, ১৯৯০ সাল থেকে নওগাঁয় সদর উপজেলার শালুকা ও মশরপুর মৌজার উপর বিসিক শিল্প নগরী স্থাপনের কার্যক্রম শুরু হয়। সর্বমোট ১৫ দশমিক ১৪ একর জমির উপর ২০০০ সালে ২ কোটি ৮৪ লক্ষ ৬ হাজার টাকা ব্যয়ে প্রকল্পটির নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। অভ্যান্তরীন রাস্তা কার্পেটিংসহ প্রকল্পটি’র নির্মাণ কাজ পুরোপুরি শেষ হয়েছে ২০০৪ সালে।
এর মধ্যে ওয়াটার ট্যাংক ও পাম্প ড্রাইভার কোয়াটার ০ দশমিক ১৪ একর, প্রশাসনিক ভবন, মসজিদ ও পোষ্ট অফিস ০ দশমিক ৪৮ একর, রাস্তা নির্মাণ ৩ দশমিক ০৭ একর এবং প্লট নির্মাণ করা হয়েছে ১১ দশমিক ৪৫ একর জমির উপর।
এ শিল্পনগরীতে মোট ৮২টি প্লট নির্মাণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৮১টি প্লট বরাদ্দযোগ্য। বরাদ্দযোগ্য সবগুলো প্লটই বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। বরাদ্দকৃত প্লটগুলোতে উৎপাদন শিল্প অনুযায়ী মোট ৫৩টি ইউনিটে বিভাজন করা হয়েছে। শিল্পখাত ভিত্তিক শিল্প ইউনিট সমূহের সংখ্যা হচ্ছে খাদ্য ও খাদ্যজাত ইউনিট ৩৩টি, ইঞ্জিনিয়ারিং সামগ্রী উৎপাদনে ইউনিট ১৫টি, জৈব সার উৎপাদনের ইউনিট ১টি, প্লাষ্টিক সামগ্রী উৎপাদনের ইউনিট ২টি, কেমিক্যাল দ্রব্য উৎপাদনে ইউনিট ১টি এবং বনজ খাতে ১টি ইউনিট স্থাপিত হয়েছে। এসব শিল্প ইউনিটে উৎপাদিত দ্রব্য সামগ্রী নওগাঁসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে সরবরাহ হচ্ছে।
এসব শিল্প ইউনিটে উদ্যোক্তাদের বাস্তবায়িত এসব শিল্প কারখানায় মোট বিনিয়োগ হয়েছে ৯৬ কোটি ৯৫ লক্ষ টাকা। এসব শিল্প কারখানায় মোট কর্মসংস্থান হয়েছে ১ হাজার ৭শ ২ জন শিক্ষিত অর্ধ শিক্ষিত নারী পুরুষের। এদের মধ্যে রয়েছে ১ হাজার ৩শ ৪৯ জন পুরুষ এবং ৩শ ৫৩ জন মহিলা। এর ফলে এখানে এসব পরিবারের প্রায় সাড়ে ৮ হাজার মানুষের অন্নের সংস্থান নিশ্চিত হয়েছে।
এ বিসিক থেকে প্লট বরাদ্দ গ্রহিতাদের নিকট থেকে এ পর্যন্ত মোট ৩ কোটি ১৫ লক্ষ ৯০ হাজার টাকা আদায় করা হয়েছে। এর মধ্যে জমির কিস্তি আদায় ২ কোটি ২৩ লক্ষ ৯৩ হাজার টাকা, সার্ভিস চার্জ আদায় ৪২ লক্ষ ১৫ হাজার টাকা ভ’মি উন্নয়ন কর আদায় ৩ লক্ষ ৭৪ হাজার টাকা, পানির বিল ১০ লক্ষ ৭ হাজার টাকা এবং অন্যান্য ৩৫ লক্ষ ৯১ হাজার টাকা। অন্যান্য আদায়ের মধ্যে রয়েছে প্লট ট্রান্সফার ফি, লে আউট প্ল্যান ফি, পানির লাইন সংযোগ ফি এবং কারখানা ভাড়া।
নওগাঁ বিসিকের শিল্প নগরী কর্মকর্তা মোঃ আনোয়ারুল আজিম জানিয়েছেন, বিসিকের চেয়ারম্যান মোঃ মোস্তাক হাসান এনডিসি’র সুদক্ষ দিক নির্দেশনায় বিসিক-এর নিয়মিত কার্যক্রম দক্ষতার সাথে পরিচালিত হয়ে আসছে। শিল্প উদ্যোক্তাদের যাবতীয় স্বার্থ সম্বলিত বিষয়গুলো তাঁর দিকনির্দেশনায় যথাযথ তদারকী অব্যাহত রয়েছে।
তিনি আরও বলেছেন, এ শিল্প নগরীতে প্লট বরাদ্দ নিতে উদ্যোক্তাদের আরও চাহিদা রয়েছে। কিন্তু প্লাট শতভাগ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। কাজেই নওগাঁ শিল্প নগরী সম্প্রসারিত হওয়া একান্ত জরুরুী। কাজেই এখন সম্প্রসারণের পরিকল্পনা বাসতবায়নের দিকে দৃষ্টিপাত করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *