কনের শাড়ি পছন্দ না হওয়ায় পালালেন বর!

বৈচিত্র ডেস্ক : ঘোর এই কলিকালে অল্প গন্ডগোলের জেরেই ভেঙে যায় অনেক সম্পর্ক। অনেক দম্পতির সুখের সংসার পরিণতি পায় বিচ্ছেদে! কিন্তু, কনের পরনে থাকা শাড়ি পছন্দ না হওয়ায় বিয়ে ভেঙে যাওয়ার ঘটনা মনে হয়ে খুবই বিরল। সম্প্রতি বিরল এই ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের কর্ণাটকের হাসসান শহর সংলগ্ন একটি গ্রামে।

এদিকে, মেয়ের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে একটি মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কর্ণাটকের হাসসান শহর সংলগ্ন একটি গ্রাম বাস করেন অভিযুক্ত পাত্র বিএন রঘুকুমার ও পাত্রী বি আর সংগীতা। এক বছর আগে স্থানীয় ওই যুবক-যুবতীর মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। কয়েকদিন আগে বাড়ির লোকের সঙ্গে কথা বলে সংগীতার সঙ্গে বিয়ের দিন ঠিক করে রঘুকুমার। তারপর সব পরিকল্পনা মতোই এগোচ্ছিল। কিন্তু, বাদ সাধল নিয়তি! গত বুধবার, বিয়ের আগের দিন লোকাচারের একটি অনুষ্ঠানে কনের পরনে থাকা শাড়ি পছন্দ হয়নি রঘুকুমারের বাবা-মার। তাই সংগীতাকে ওই শাড়িটি পরিবর্তন করতে বলেন তারা। কিন্তু, তা মানতে চাননি ওই যুবতী। বিষয়টি নিয়ে পাত্রীর পরিবারের সঙ্গে তুমুল গন্ডগোল হয় পাত্রের বাবা-মা ও অন্য আত্মীয়দের। তাতেও সমস্যার কোনও সমাধান হয়নি।

বিষয়টি তখনকার মতো হজম করে নিলেও বাড়ি ফিরে রঘুকুমারকে পালিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন তারা। বলেন, কোনওভাবেই সংগীতার সঙ্গে তার বিয়ে তারা মেনে নেবেন না। বাড়ির লোকের মুখে এই কথা শুনে বিয়ের দিন সকালে বাড়ি থেকে পালিয়ে যান বর।

এদিকে বিয়ের প্রস্তুতি সম্পন্ন হওয়ার পরেও বরের পাত্তা নেই দেখে খোঁজখবর নিতে শুরু করেন মেয়ের বাড়ির লোকজন। পরে তারা জানতে পারেন যে পরিবারের লোকদের পরামর্শে বাড়ি থেকে পালিয়ে গেছে পাত্র। বাধ্য হয়ে স্থানীয় থানায় গিয়ে সব ঘটনার কথা খুলে বলে অভিযোগ দায়ের করে। তার ভিত্তিতে পলাতক রঘুকুমারের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *