বিমানের ব্ল্যাকবক্স নিয়ে তদন্ত শুরু

বৈচিত্র রিপোর্ট  : নেপালের কাঠমাণ্ডুতে বিধ্বস্ত বাংলাদেশের বেসরকারি বিমান পরিবহন সংস্থা ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিএস২১১ ফ্লাইটের ব্ল্যাকবক্স (ফ্লাইটের সংগৃহীত ডাটা রেকর্ডার) নিয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে।  আজ মঙ্গলবার নেপালের বিভিন্ন গণমাধ্যমকে এ কথা জানিয়েছেন নেপালের ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের জেনারেল ম্যানেজার রাজ কুমার ছেত্রী।

তিনি জানান,  বিমান বিধ্বস্তের ঘটনার পর স্থানীয় সময় বিকালে ইউএস-বাংলার ফ্লাইটটির ধ্বংসাবশেষ থেকে ব্ল্যাকবক্স উদ্ধার করা হয়।  এটি তাদের কাছে সুরক্ষিত রয়েছে।বিমানটি বিধ্বস্ত হওয়ার কারণ হিসেবে ত্রিভুবন বিমানবন্দরের এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলের ভুল নির্দেশনাকে দায়ী করছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স।  তবে নেপালি কর্তৃপক্ষ বলছে, ফ্লাইট ২১১কে রানওয়ের দক্ষিণ দিক থেকে অবতরণ করতে বলা হলেও পাইলট উত্তর দিক থেকে অবতরণ করে।  কোনো  যান্ত্রিক ত্রুটি ছিল না কি ককপিটের ভুল নির্দেশনায় বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে, উদ্ধার হওয়া ডাটা রেকর্ডার তদন্তের পরই এই রহস্যের জট খুলবে।সোমবার দুপুরে কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলার বিমানটি বিধ্বস্ত হয়।  এতে ৩২ বাংলাদেশিসহ ৭১ জন আরোহী ছিলেন।  তাদের মধ্যে ৪ জন ক্রু ছিলেন।  শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় পাইলট ক্যাপ্টেন আবিদ সুলতানসহ ৫০ জন নিহত হয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *