বইমেলা শুরু হবে তবে করোনা সংক্রমণ বাড়লে স্থগিত হতে পারে

বইমেলা শুরু হবে তবে করোনা সংক্রমণ বাড়লে স্থগিত হতে পারে

বইমেলা শুরু হবে তবে করোনা সংক্রমণ বাড়লে স্থগিত হতে পারে
ছবি: সংগৃহীত

বৈচিত্র ডেস্ক:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার বইমেলার উদ্বোধন করবেন তবে করোনা সংক্রমণ বাড়লে পরিস্থিতি পর্যালোচনা করা হবে এবং মেলা স্থগিত হতে পারে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ।

বইমেলা উপলক্ষে বাংলা একাডেমিতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয় এবারের বইমেলা ১৮ই মার্চ থেকে শুরু হয়ে চলবে আগামী ১৪ই এপ্রিল পর্যন্ত।

১৮ই মার্চ বিকেলে প্রধানমন্ত্রী মেলার উদ্বোধন করবেন ভার্চুয়ালি এবং শেখ মুজিবুর রহমানের লেখা আমার দেখা নয়াচীন -এর ইংরেজি অনুবাদ গ্রন্থ উন্মোচন করবেন।

এবারের মেলায় বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণ ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে মোট ৫৪০টি প্রতিষ্ঠানকে জায়গা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

এর মধ্যে একাডেমি প্রাঙ্গণে ১০৭টি প্রতিষ্ঠানকে ১৫৪টি ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ৪৩৩ টি প্রতিষ্ঠানকে ৬৮০টি ইউনিট বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

এবারো শিশুচত্বর মেলার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানেই থাকবে তবে করোনার জন্য 'শিশুপ্রহর' থাকবেনা।

এছাড়া প্রতিদিন বিকেল চারটায় মেলার মুল মঞ্চে সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া মাসব্যাপী প্রতিদিন সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে।

প্রসঙ্গত, সাধারণ প্রতি বছর ফেব্রুয়ারি মাস জুড়ে অমর একুশে বইমেলা অনুষ্ঠিত হয়। তবে এবার করোনার কারণে মেলা পিছিয়ে দেয়া হয়েছে।

যদিও করোনাভাইরাস মহামারির কারণে ২০২১ সালের একুশে বই মেলা উন্মুক্ত প্রাঙ্গণে আয়োজন না করে অনলাইনে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলো বাংলা একাডেমি কর্তৃপক্ষ।

তবে পরে তা আর হয়নি মূলত প্রকাশকদের বিরোধিতার কারণে।

বিবিসি